হাদিসের তালিকা

Menu

সহিহ বুখারী (৭৫৬৩ টি হাদীস)

৭০ আহার সংক্রান্ত হাদিস নাম্বার:-  ৫৩৭৩ - ৫৪৬৬

৭০/৩. অধ্যায়ঃ ‎

আহারের পূর্বে ‘বিসমিল্লাহ’ বলা এবং ডান হাত দিয়ে আহার করা।


আনাস (রাঃ) বলেন, নবী (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেনঃ তোমরা বিসমিল্লাহ বলবে এবং ‎প্রত্যেকে তার কাছের থেকে আহার করবে।

৫৩৭৭

সহিহ বুখারী

অধ্যায় : আহার সংক্রান্ত

হাদীস নং : ৫৩৭৭


حَدَّثَنِي‎ ‎عَبْدُ‎ ‎الْعَزِيزِ‎ ‎بْنُ‎ ‎عَبْدِ‎ ‎اللَّهِ،‎ ‎قَالَ‎ ‎حَدَّثَنِي‎ ‎مُحَمَّدُ‎ ‎بْنُ‎ ‎جَعْفَرٍ،‎ ‎عَنْ‎ ‎مُحَمَّدِ‎ ‎بْنِ‎ ‎عَمْرِو‎ ‎بْنِ‎ ‎حَلْحَلَةَ‎ ‎الدِّيلِيِّ،‎ ‎عَنْ‎ ‎وَهْبِ‎ ‎بْنِ‎ ‎كَيْسَانَ‎ ‎أَبِي‎ ‎نُعَيْمٍ،‎ ‎عَنْ‎ ‎عُمَرَ‎ ‎بْنِ‎ ‎أَبِي‎ ‎سَلَمَةَ‎ ‎ـ‎ ‎وَهْوَ‎ ‎ابْنُ‎ ‎أُمِّ‎ ‎سَلَمَةَ‎ ‎ـ‎ ‎زَوْجِ‎ ‎النَّبِيِّ‎ ‎صلى‎ ‎الله‎ ‎عليه‎ ‎وسلم‎ ‎قَالَ‎ ‎أَكَلْتُ‎ ‎يَوْمًا‎ ‎مَعَ‎ ‎رَسُولِ‎ ‎اللَّهِ‎ ‎صلى‎ ‎الله‎ ‎عليه‎ ‎وسلم‎ ‎طَعَامًا‎ ‎فَجَعَلْتُ‎ ‎آكُلُ‎ ‎مِنْ‎ ‎نَوَاحِي‎ ‎الصَّحْفَةِ‎ ‎فَقَالَ‎ ‎لِي‎ ‎رَسُولُ‎ ‎اللَّهِ‎ ‎صلى‎ ‎الله‎ ‎عليه‎ ‎وسلم‎ ‎‏‎ "‎‏‎ ‎كُلْ‎ ‎مِمَّا‎ ‎يَلِيكَ‎ ‎‏‎"‎‏‏‎.‎‏

আবদুল ‘আযীয ইবনু ‘আবদুল্লাহ ‘উমার ইবনু আবূ সালামা (রাঃ) ‎ থেকে বর্ণিতঃ

তিনি নবী (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-এর স্ত্রী উম্মু সালামাহ্‌র পুত্র ছিলেন। তিনি বলেনঃ একদিন আমি ‎রসূলুল্লাহ্‌ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-এর সঙ্গে খাবার খেলাম। আমি পাত্রের সব দিক থেকে খেতে লাগলাম। ‎রসূলুল্লাহ্‌ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম) আমাকে বললেনঃ নিজের কাছের দিক থেকে খাও। ‎(আধুনিক প্রকাশনী- ৪৯৭৬, ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৮৭২)

৫৩৭৮

সহিহ বুখারী

অধ্যায় : আহার সংক্রান্ত

হাদীস নং : ৫৩৭৮


عَبْدُ اللهِ بْنُ يُوسُفَ أَخْبَرَنَا مَالِكٌ عَنْ وَهْبِ بْنِ كَيْسَانَ أَبِي نُعَيْمٍ قَالَ أُتِيَ رَسُوْلُ اللهِ صلى الله عليه وسلم بِطَعَامٍ وَمَعَه“ رَبِيبُه“ عُمَرُ بْنُ أَبِي سَلَمَةَ فَقَالَ سَمِّ اللهَ وَكُلْ مِمَّا يَلِيكَ.

আবূ নু’আইম (রাঃ) ‎ থেকে বর্ণিতঃ

তিনি বলেনঃ রসূলুল্লাহ্‌ (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-এর কাছে একদা কিছু খাবার আনা হলো, তাঁর সঙ্গে ‎ছিলেন তার পোষ্য ‘উমার ইবনু আবূ সালামা। তিনি বললেনঃ বিসমিল্লাহ বল এবং নিজের কাছের দিক থেকে খাও। ‎(আধুনিক প্রকাশনী- ৪৯৭৭, ইসলামিক ফাউন্ডেশন- ৪৮৭৩)

Copyright © 2022 myislam | Powered by Masud Rana.